সংবাদ শিরোনাম

সাংবাদিক ফরিদ বাবুলএর বোনের চিকিৎসায় কক্সবাজার জেলা প্রশাসকের ৫০ হাজার টাকা অনুদান

টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটির সদস্য, ও অনলাইন পোর্টাল নাফ বাংলা টিভির সম্পাদক সাংবাদিক বাবুল এর সেজবোন শামসুন্নাহার(৫০) করোনায় আক্রান্ত হয়ে ঢাকা ধানমন্ডি পপুলার হাসপাতালের আইসিউতে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

চিকিৎসক জানিয়েছেন, তাঁর জীবন বাঁচানোর জন্য বেশ কয়েকটা শরীরে ইনজেকশন পুশ করতে। না হয় ওনাকে বাঁচানো সম্ভাবনা না।

ফার্মেসীতে গিয়ে জানা যায়, সেই একটি ইনজেকশনের দাম এক লাখ পঞ্চাশ হাজার টাকা। সেই রকম কয়েকটি ইনজেকশন পর্যায়ক্রমে রোগীর শরীরে দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে উনার বোনকে বাঁচাতে হলে আরো কয়েকটি ইনজেকশনের জন্য আরো আর্থিক সহযোগিতা দরকার।

এমতাবস্থায় তাদের পরিবার এখন অসহায় হয়ে পড়েছেন। গত কয়েকদিনে এ চিকিৎসার ব্যয়ভার বহণ করতে গিয়ে পরিবারের লাখ লাখ টাকা খরচ হয়ে গেছে। এখন আর চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা পরিবারের পক্ষে সম্ভব না।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম স্যোশাল মিডিয়া ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেখে টেকনাফ উপজেলা চেয়ারম্যান,উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পারভেজ চৌধুরীর নজরে আসেন এবং বিষয়টি জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদকে অবগত করলেন।

অসুস্থ শামসুন্নাহারের চিকিৎসার জন্য জেলা প্রশাসনের তহবিল থেকে নগদ ৫০ হাজার টাকা অনুদান করেন জেলা প্রশাসক মামুনুর রশিদ।

রবিবার (১১ এপ্রিল) বিকালে জেলা প্রশাসকের পাঠানো অনুদান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) পারভেজ চৌধুরীর হাত থেকে অসুস্থ শামসুন্নাহারের ভাই ফরিদ বাবুলকে নগদ অর্থ হস্তান্তর করেন।

একজন বিধবা মহিলার জীবন সায়াহ্নে পাশে দাঁড়ানোর জন্য জেলা প্রশাসক মোঃ মামুনুর রশিদ এর প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান অসুস্থ শামসুন্নাহারের পরিবার,আত্নীয়স্বজন ও টেকনাফ সাংবাদিক ইউনিটি।

উল্লেখ্য,কক্সবাজার-৪ আসনের সাবেক সাংসদ আলহাজ্ব আব্দুর রহমান বদি আর্থিকভাবে  সহযোগিতা করেছেন।